Take a look at the less expensive 10 textbooks for students

।১. ডেল ইনস্পিরন ১৫.৬-৩৫৫২:
এই উইন্ডোজ ১০ মেশিনটি ওজনে হালকা এবং চিকন। এটি ১ টেরাবাইট হার্ডড্রাইভ সম্বলিত। আপনার প্রিয় ছবি, গান, ভিডিও এবং কাজ সংশ্লিষ্ট ফাইলগুলো সংরক্ষণের জন্য এই পরিমাণ হার্ডড্রাইভ মেমোরিই যথেষ্ট। এই ল্যাপটপের ডুয়াল-কোর এবং কোয়াড-কোর সংস্করণও আছে। এর দাম নিবে ২৮০০০ টাকা ।
২. আসুস ভিভোবুক ই২০০এইচএ:
খুবই হালকা-পাতলা এবং সাশ্রয়ী এই নোটবুকটি উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমে চালিত হয়। এর ব্যাটারিও বেশ দীর্ঘস্থায়ী হয়। এতে অফিস ৩৬৫ এক বছর সাবস্ক্রাইব করা যায়। এবং টানা ১৩ ঘন্টা ধরে ভিডিও দেখা যায়। এতে রয়েছে একটি এটম কোয়াড-কোর প্রসেসর। যার মাধ্যমে আপনি আপনার প্রতিদিনের কম্পিউটিং কাজগুলো সেরে নিতে পারবেন সহজেই। ৩২ গিগাবাইটের ডাটা সংরক্ষণ সুবিধা ব্যবহার করে আপনি আপনার প্রিয় গান, ভিডিও, ছবি এবং তথ্য ফাইল সংরক্ষণ করতে পারবেন এতে। এর দাম নিবে ১৭০০০ টাকা ।
৩. এসার ক্রোমবুক ১৫.৬ ইঞ্চি:
অর্থের ঘাটতি থাকলে উইন্ডোজ বা ম্যাক ল্যাপটপের বদলে বরং এসারের এই ক্রোমবুকটি কিনুন। এসারের এই ক্রোমবুকটির ডিসপ্লে আর যে কোনো ক্রোমবুকের ডিসপ্লের চেয়ে আকারে বড়। ডিসপ্লেটি পুরোপুরি এইচডি। সিনেমা দেখার জন্য এধরনের একটি ডিসপ্লে খুবই উপযোগী। আর আইপিএস স্ক্রিনের মাধ্যমে আপনি কোনো বিকৃতি ছাড়াই ওয়াইড অ্যাঙ্গেল থেকে দেখতে পারবেন। তবে বড় আকারের স্ক্রিনে জরুরি কোনো কাজ করাও সহজ হয়। এর দাম পড়বে ২২৫০০ টাকা ।
৪. লেনোভো ইয়োগা ৩০০.১১ ইঞ্চি:
এই ল্যাপটপটি ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরিয়ে কোঁচকানো যায়। এটি ল্যাপটপ থেকে স্ট্যান্ড, টেন্ট ও ট্যাবলেট মুডে রুপান্তরিত হয়। এর স্ক্রিনটি ১১ ইঞ্চি। ডিসপ্লেতে রয়েছে টাচ স্ক্রিন। এর দাম পড়বে ২৯৫০০ টাকা ।
ইনটেল পেন্টিয়াম প্রসেসরে চালিত এবং উইন্ডোজ ১০ হোম সম্বলিত এই ছোট্ট মেশিনটিতে তিনটি ইউএসবি পোর্ট রয়েছে। আরো রয়েছে একটি পুর্ণ আকারের ইথারনেট পোর্ট, এইচডিএমআই সকেট এবং একটি পুর্ণ আকারের এসডি স্লট।
৫. এইচপি ১৫.৬ ইঞ্চি ইন্টেল পেন্টিয়াম ৪ গিগাবাইট ১ টিবি ল্যাপটপ:
ড্রাগনফ্লাই ব্লু, কার্ডিনাল রেড, মডার্ন গোল্ড, স্পোর্ট পার্পল। এইচপি এর সচরাচর সাদা-কালো স্ক্রিন থেকে দৃষ্টিনন্দন এই ডিসপ্লেতে সরে এসেছে। একটি এইচডি স্ক্রিন সম্বলিত এই মেশিনটিতে আরো রয়েছ ১ টেরাবাইটের হার্ডড্রাইভ, ডুয়াল কোর ইনটেল পেন্টিয়াম প্রসেসর এবং আপনার প্রয়োজনীয় সকল সংযোগ পোর্ট। ল্যাপটপটির দাম পড়বে
২৫০০০ টাকা
৬. আসুস এক্স৫৫৩এসএ:
‘ইনস্ট্যান্ট অন’ ফিচার সম্বলিত এই ল্যাপটপটি মাত্র ২ সেকেন্ডের মধ্যে স্লিপ মুড থেকে পুরোপুরি কার্যকারিতার মুডে আসে। তার মানে আপনি আগে যা করছিলেন তাতে মুহূর্তেই ফিরে যেতে পারবেন। ১৫.৬ ইঞ্চির ডিসপ্লে এবং ডিভিডি ড্রাইভ সম্বলিত এই ল্যাপটির সাউন্ড এবং দৃশ্যের গুনাগুনও উচ্চ মানের। উইন্ডোজ ৮.১ অপারেটিং সিস্টেম সম্বলিত এই ল্যাপটপটি উইন্ডোজ ১০ সিস্টেমে হালনাগাদ সম্ভব। এটি একটি ভালো অলরাউন্ড ল্যাপটপ। এর দাম নিবে ২৪৫০০ টাকা ।
৭. এইচপি প্যাভিলিয়ন এক্স ২:
এক্স ২ ল্যাপটপটিকে সহজেই ট্যাবলেট থেকে নোটবুকে বদলে ফেলা যায়। এর ডিসপ্লেটি যে কোনো পজিশনে রেখে ব্যবহার করা যায়। এমনকি স্ক্রিনটি পুরোপুরি বিচ্ছিন্নও করে ফেলা যায়। উইন্ডোজ ১০ এবং ইনটেল প্রসেসর সম্বলিত এই ল্যাপটপটি খুব শান্ত ফলে ফ্যানের বিরক্তিকর শোঁ শোঁ শব্দের হ্যাপা নেই। আর এর আইপিএস ডিসপ্লেটি যে কোনো অ্যাঙ্গেল থেকে স্ক্রিনটিকে পরিষ্কার করে দেখতে সহায়ক। এর দাম পড়বে ১৯০০০ টাকা ।
৮. টোশিবা স্যাটেলাইট ক্লিক ১০ এলএক্সওডব্লিউ:
১৪ ঘন্টার বেশি সময়ের ব্যাটারি স্থায়িত্বসহ এই ইউনিটটি পুরো দুই কর্মদিবস ধরে চলবে। এর স্ক্রিনটিও এমনভাবে স্থাপন করা যে আপনি চাইলে একে ল্যাপটপ থেকে ট্যাবলেটে রুপান্তরিত করে ব্যবহার করতে পারবেন। এটি খুবই হালকা একটি মেশিন। ল্যাপটপ হিসেবে ব্যাবহারের সময় এর ওজন থাকে মাত্র ১ কেজি। আর ট্যাবলেট হিসেবে ব্যাবহারের সময় এর ওজন হয় মাত্র আধা কেজি। আর এর পুর্ণ এইচডি ডিসপ্লেটি ১৮০ ডিগ্রিতে দেখার কোন সম্বলিত। ফলে এটি খেলা এবং কাজ উভয় ক্ষেত্রেই বেশ সাবলীল। এর দাম পড়বে ২৬৫০০ টাকা।
৯. ডেল ক্রোমবুক ১১:
এই ল্যাপটির কী বোর্ড পুরোপুরি তরল নিরোধক। আত্মসচেতন শিক্ষার্থীদের একটি স্মার্ট চয়েস হতে পারে এটি। এর তলাটি রাবারের তৈরি। ফলে ইলেকট্রিক শক থেকে সৃষ্ট দুর্ঘটনার ঝুঁকিও কম। এছাড়া এর স্ক্রিনটিও আঁচড়নিরোধী। এতে থাকা ইন্টেল সেলেরন প্রসেসর এবং ৪ গিগাবাইটের র‌্যামটি ভিডিও স্ট্রিমিংয়ের সময় ইন্টারনেট ব্রাউজিংয়ের সঙ্গে সহজেই এঁটে যায়। ল্যাপটপটির দাম পড়বে ১৯০০০ টাকা ।
১০. লেনোভো থিঙ্কপ্যাড ১১ই ক্রোমবুক:
উচ্চচাপ, আর্দ্রতা, ভাইব্রেশন, উচ্চ তাপমাত্রা, তাপমাত্রার অভিঘাত, নিম্ন চাপ, নিম্ন তাপমাত্রা, সূর্যের বিকিরণ এবং ধুলোবালি ও ছত্রাক- শিক্ষার্থীদের যে কোনো আবাসিক পরিবেশে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে এই ল্যাপটপ। ১১.৬ ইঞ্চির এইচডি ডিসপ্লে এবং ১২ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাটারির চার্জ-স্থায়িত্ব সম্বলিত এই ক্রোমবুকটি একটি যুদ্ধ ট্যাঙ্কের মতো করে নির্মিত হয়েছে। ল্যাপটপটির দাম পড়বে
২৬০০০ টাকা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *